প্রেমের ফাঁদে ফেলে কলেজছাত্রীকে ধর্ষণ

অপরাধ ও দুর্নীতি

বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার এক কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। ওই কলেজছাত্রী বুধবার (৯ জানুয়ারি) রাতে আগৈলঝাড়া থানায় মামলা করেন।

শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাঁকে বরিশালের শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও আগৈলঝাড়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) দেলোয়ার হোসেন বলেন, গত নভেম্বরের শেষদিকে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ওই তরুণীর সঙ্গে ইতালিপ্রবাসী যুবক রিপন মাঝির (২৫) পরিচয় হয়। এরপর নিয়মিত ফোনে কথা বলতেন তাঁরা। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে।

ওই ছাত্রীর অভিযোগ গত ৫ জানুয়ারি সকালে রিপন মাঝি তাঁদের বাড়িতে আসেন। ওই সময় বাড়িতে পরিবারের কেউ ছিলেন না। কথাবার্তা বলার একপর্যায়ে রিপন মাঝি তাঁকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি রিপন মাঝির অভিভাবকদের জানানো হয়। পরে রিপন মাঝি তাঁকে বিয়ে করার আশ্বাস দিয়ে বিষয়টি পুলিশসহ কাউকে জানাতে নিষেধ করেন। পাঁচ দিন অতিবাহিত হলেও বিয়ের পদক্ষেপ না নেয়ায় তিনি থানায় মামলা করেন।

আগৈলঝাড়া থানার ওসি (তদন্ত) নকিব আকরাম হোসেন বলেন, ওই কলেজছাত্রী বাদী হয়ে রিপন মাঝিকে প্রধান আসামি করে এবং অজ্ঞাতনামা আরও ২ থেকে ৩ জনকে আসামি করে মামলা করেছেন।

ওই কলেজছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেই সাথে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

পিবিডি/ হাসনাত