প্রথম দিনেই আম্পায়ারের সমলোচনা করলেন ওয়ার্নার

ক্রিকেট বিপিএল

শোয়েব মালিকের করা পঞ্চম ওভারের তৃতীয় বলে তরুণ ক্রিকেটার তৌহিদ হৃদয়ের সাথে ভুল বোঝাবুঝিতে আউটের শিকার হন সিলেটের বাঁহাতি এই ওপেনার। মালিকের করা বলটি হৃদয়ের প্যাডে লেগে স্কয়ার লেগ অঞ্চলে চলে গিয়েছিলো। সে সময় অপর প্রান্তে থাকা ওয়ার্নার রান নেয়ার জন্য দৌড় শুরু করলেও তাতে সাড়া দেননি হৃদয়।

দুইজনেই একই প্রান্তে অবস্থান করছিলেন। যদিও হৃদয়ের আগেই দাগের ভেতর পৌঁছে গিয়েছিলেন ওয়ার্নার। কিন্তু থার্ড আম্পায়ার ওয়ার্নারকেই আউট দিয়েছেন। আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে মাত্র ১৪ রানে আউট হতে হয়েছে ওয়ার্নারকে।

ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে সিলেটের অধিনায়ক আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়ে বলেছেন, ‘সবাই বলছিল এটা সঠিক সিদ্ধান্ত ছিল না। আমি দেখিনি কি ঘটেছে। কিন্তু দেখা যাচ্ছিল আমি দাগের ভেতরে। যদি আপনি ক্যামেরার পেছনে থাকেন এবং এই সিদ্ধান্তগুলো ভুল দেন, আমি জানি না কিভাবে।

‘আমি কিছু পক্ষ হয়ে কথা বলতে পারি না, যে সিদ্ধান্তটি দিয়েছেন। যদি আমি আউট না হই, তাহলে সেটা আউট না। কিন্তু আমাকে অবশ্যই সিদ্ধান্তটি গ্রহণ করতে হবে,’ ম্যাচ শেষে সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন ওয়ার্নার।

আম্পায়ারের ভুল সিদ্ধান্তে ওয়ার্নার আউট হওয়ার আগে আসল ভুলটি করেছেন সদ্য অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট পর্ব পার করা তিন নম্বর ব্যাটসম্যান তৌহিদ হৃদয়। বিষয়টি সম্পূর্ণ ভুল বোঝাবুঝি হিসেবে ব্যাখ্যা করেন ওয়ার্নার।

তাঁর ভাষায়, ‘এটা তেমন কিছু না। দিন শেষে আমরা এ নিয়ে কথা বলেছি। সেখানে তিন চারটি কল ছিল। আমি তাঁকে বলেছি আমাদের ইয়েস বলার দরকার নেই। তুমি বলে আঘাত কর, অপেক্ষা কর এবং দেখ। ক্রিকেটে এমন হয়। কারো কোন ভুল নেই। এটা ভুল বোঝাবুঝি এবং আমাদের তা ভুলে সামনে এগিয়ে যেতে হবে।’