রাজশাহীমুখী বাস বন্ধ, তবুও আসছেন নেতাকর্মীরা

রাজশাহীমুখী বিভাগের বিভিন্ন জেলার যানবাহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, সমাবেশে নেতাকর্মীদের বাধা দিতে সরকার চাপ সৃষ্টি করে শ্রমিক নেতাদের দিয়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে।

তবে বিভিন্ন জেলা থেকে রাজশাহী অভিমুখে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হলেও সমাবেশে যোগ দিতে বিকল্প পথে বেছে নিয়েছেন নেতাকর্মীরা। নৌকা, ট্রেন বা ছোট ছোট যানবাহন ব্যবহার করে আসছেন অনেকে।

রাজশাহী শহরের বিভিন্ন পয়েন্ট জড়ো হচ্ছে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট নেতারা। মাদ্রাসায় জেডিসি পরীক্ষা চলায় এখনই জনসভাস্থলে যেতে পারছেন না নেতাকর্মীরা। তবে শহরের বিভিন্ন পয়েন্টে রাজশাহীর আশপাশের জেলাগুলোর নেতাকর্মীরা জড়ো হচ্ছেন। পরীক্ষা শেষ হলে তারা মিছিল নিয়ে যোগ দেবেন জনসভায়।

পদ্মার পাড়, চিড়িয়াখানা, ঈদগাহ মাঠ, রেল স্টেশন, রাজশাহী বিশ্ব বিদ্যালয়সহ শহরের বিভিন্ন পয়েন্ট খন্ড খন্ড আকারে নেতাকর্মীদের জড়ো হতে দেখা গেছে। রাজশাহী ও আশপাশের জেলায় পরিবহন বন্ধ থাকায় নেতাকর্মীদের আসতে প্রতিবন্ধকতা তৈরি হয়েছে।

তবে সব প্রতিবন্ধকতা এড়িয়ে ট্রেন, মাইক্রো এবং নৌকা যোগে চলে এসেছেন রাজশাহীতে। অনেকে দুই তিনদিন আগেই সমাবেশে যোগ দেয়ার উদ্দেশ্যে শহরে এসে অবস্থান করছেন।

পাবনার ইশ্বরদী থানা বিএনপির সহ সভাপতি আতিয়ার রহমান বলেন, আমাদের এলাকায় বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ট্রেন ছাড়া কোন পরিবহন চলছে না। আমরা ভোরের ট্রেনে চলে এসেছি।

বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য সাবেক এমপি সিরাজুল ইসলাম সরদার বলেন, গাড়ি না পেয়ে পাবনা থেকে মাইক্রোতে এসেছি। পথে পথে বিভিন্ন জায়গায় ঠেকানো হয়েছে। বিভিন্ন রাস্তা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।