ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ, মন্দিরের পুরোহিত গ্রেপ্তার

ভয় দেখিয়ে এক নারীকে ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে মন্দিরের পুরোহিত উপেন্দ্র পাঠকের বিরুদ্ধে। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে। ঘটনাটি ঘটে কলকাতার একটি অঞ্চল বেহালায়।

নির্যাতিতা পরিবারের অভিযোগ, গত কয়েক মাস ধরে ভয় দেখিয়ে মানসিক ভারসাম্যহীন ওই নারীকে ধর্ষণ করেন বাড়ির পাশের এক মন্দিরের পুরোহিত। বেহালার অজন্তা সিনেমা হলের কাছে ওডিআরসি কোয়ার্টারের পিছনে রয়েছে ওই মন্দির। মন্দিরের পাশেই একটি বাড়িতে থাকেন তিনি। তার বিয়ে হয়েছিল। কিন্তু, পরে মানসিক সমস্যা দেখা দেওয়ায় স্বামী তার সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করেন।

নির্যাতিতা নারীর বোন বলেন, মন্দিরের পাশেই পুকুরে গোসল করতে যেতেন তার বোন। সেই সুযোগ কাজে লাগিয়েছে ওই পুরোহিত। তার দাবি, তার বোন দু’মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তিনি আরও বলেন, বৃহস্পতিবার সকালে ওই পুরোহিত তার বোনকে ভয় দেখান, যাতে সে কাউকে কিছু না বলে। সেই সময় গোটা ঘটনা আড়াল থেকে শুনে ফেলি আমি। তার বোনকে প্রাণে মেরে ফেলার ভয় দেখান ওই পুরোহিত। তাই সে গোপন রেখেছিল গোটা বিষয়টা।

বৃহস্পতিবার এই ঘটনার কথা জানাজানি হতেই এলাকার বাসিন্দারা হামলা চালান ওই পুরোহিতের উপর। মারধর করা হয় তাকে। পরে পর্ণশ্রী থানার পুলিশ এসে পুরোহিতকে গ্রেপ্তার করে।

পুলিশ জানিয়েছে, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে তারা অভিযুক্ত পুরোহিত উপেন্দ্র পাঠককে গ্রেপ্তার করে।